Monday, October 31, 2022

আবারও নেতৃত্বে ফেরার কারণ খোলাসা করলেন ধোনি

মহেন্দ্র সিং ধোনি স্বেচ্ছায় সরে দাঁড়িয়েছিলেন চেন্নাই সুপার কিংসের নেতৃত্ব থেকে। দল তাই ভেবেচিন্তে দায়িত্ব দিয়েছিল রবীন্দ্র জাদেজার ওপর। কিন্তু এবার সেই জাদেজা সরে দাঁড়ানোয় আবারও ধোনির কাঁধেই তুলে দেওয়া হয়েছে দলকে।

এতে অবাক হয়েছেন অনেকেই। আইপিএল ক্যারিয়ারের শেষ দিকে এসে ধোনি আবার নেতৃত্বে ফিরবেন, তা অনেকে কল্পনাও করতে পারেননি। জাদেজা দায়িত্ব পালনে অপারগ হলে দল তো অন্য কারও ওপরও ভরসা করতে পারত। কেন ধোনিকেই প্রস্তাব দেওয়া হল আর ধোনিও রাজি হয়ে গেলেন?

অবশেষে এই প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন খোদ ধোনি। তিনি জানালেন, বেহাল দশায় থাকা দলকে উদ্ধার করতেই আবারও নিয়েছেন অধিনায়কের ভূমিকা।

ধোনি বলেন, ‘এই মৌসুমের আগেই আমি জানিয়ে দিয়েছিলাম আর অধিনায়ক থাকব না। জাদেজা জানত ওকে দায়িত্ব নিতে হবে। তাই মানসিকভাবে নিজেকে তৈরি করার সময় পেয়েছিল। কোনো সিদ্ধান্তই হুট করে নেওয়া হয়নি। প্রথমবার অধিনায়কের দায়িত্ব সামলাচ্ছিল দেখে প্রথম কয়েক ম্যাচে ওকে পরামর্শ দিয়েছিলাম। এরপর এ-ও বলেছিলাম, ওকেই সব দায়িত্ব নিতে হবে। কখনও যেন মনে না হয় একজন টস করছে আরেকজন মাঠে অধিনায়কত্ব করছে।’

জাদেজা যখন দলকে জেতাতে পারছিলেন না, তখন বাধ্য হয়েই ধোনি অধিনায়কত্বে ফেরার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তিনি জানান, ‘অধিনায়কত্ব চামচে করে খাইয়ে দেওয়া যায় না। একটা সময় পর্যন্ত সাহায্য করা যায়, এরপর দায়িত্বটা নিজেকেই নিতে হয়। ওর পারফরম্যান্স ভালো হচ্ছিল না। কারণ মাথায় সারাক্ষণ অধিনায়কত্বের কথা ঘুরত। এর প্রভাব পড়ছিল খেলায়। জাদেজার অধিনায়কত্বের চেয়ে দলের জন্য বেশি প্রয়োজন ওর ব্যাটিং, বোলিং, ফিল্ডিং। এ কারণেই আমি আবার দায়িত্ব নিয়েছি। আমাদের উপকার হবে ও নিজের সেরাটা দিতে পারলে।’

ধোনির নেতৃত্বে চেন্নাই চেনা চেহারায় ফিরেছে। এর আগে ৮ ম্যাচে মাত্র ২ জয় পাওয়া দলটি রবিবার হেসেখেলে হারিয়েছে সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে। ধোনি অবশ্য এতে নেতৃত্বের প্রভাব খুব একটা দেখছেন না।

তিনি বলেন, ‘নেতৃত্ব পরিবর্তন মানে সব কিছু বদলে যাবে এমন নয়। ড্রেসিংরুমে ক্রিকেটার তো বদলে যায়নি। আমি বেশি কিছু বদলাতে চাইনি। ব্যাটাররাই আমাদের কাজ সহজ করে দিয়েছে। ২০০-র ওপর রান করলে জেতা সহজ, বোলাররা বাকি কাজটাও করে দিয়েছে।’

Latest news
Related news