Sunday, October 23, 2022

প্রতি সিনেমায় ২০ লাখ টাকা পারিশ্রমিক, যা বললেন মিম

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রাপ্ত অভিনেত্রী বিদ্যা সিনহা মিম। ২০০৭ সালে লাক্স-চ্যানেল আই সুপারস্টার প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়ে মিডিয়ায় কাজ শুরু করেন। শুরুতেই হুমায়ূন আহমেদ পরিচালিত ‘আমার আছে জল’চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন।

সেখানে তিনি নায়ক হিসেব পান জাহিদ হাসান ও ফেরদৌসের মতো দুই তারকাকে। পরবর্তীতে টিভি নাটক, বিজ্ঞাপনচিত্রের মডেল হিসেবেও জনপ্রিয়তা পেয়েছেন। বর্তমানের সিনেমা নিয়েই ব্যস্ত রয়েছেন এই অভিনেত্রী।

চলমান করোনাভাইরাসের প্রভাবে সিনেমার আঙিনা থমকে আছে। নেই শুটিং, নেই নতুন সিনেমা। বন্ধ রয়েছে হল। এমন সংকটকালীন সময়ে মিম পারিশ্রমিক বাড়িয়েছেন। তিনি ২০ লাখ টাকার নিচে কোনো সিনেমায় কাজ করবেন না।

দিন কয়েক ধরে এমন খবর শোনা যাচ্ছে কান পাতলেই।এই খবরের জের ধরে সমালোচনারও শিকার হয়েছেন এই সুন্দরী চিত্রনায়িকা। তবে মিম বললেন, খবরটি মিথ্যে।

মিম বলেন, ‘আমি পারিশ্রমিক বাড়ানোর বা কমানোর প্রসঙ্গে কারোর সঙ্গে কোনো কথা বলিনি। সম্প্রতি কোনো নির্মাতার সঙ্গেও পারিশ্রমিক নিয়ে কোনো কথা হয়নি।

জানিনা হঠাৎ করে আমার পারিশ্রমিক নিয়ে কেন গুজবটা ছড়ালো। তবে এটা আমাকে সমালোচিত করতে, সবার কাছে আমাকে হেয় করতেই করা হয়েছে তা বুঝতে পারছি।

দয়া করে কেউ এসব মিথ্যে খবরে কান দেবেন না প্লিজ। করোনার এই সময়ে সবাই যখন সিনেমা নিয়ে নানা দুশ্চিন্তায় দিন পার করছি সেখানে পারিশ্রমিক বাড়ানোর কোনো কারণই দেখি না আমি। সবাই মিলেমিশে সিনেমার চাকা সচল রাখতে চাই।’

মিম আরও বলেন, ‘করোনা পরিস্থিতি আস্তে আস্তে সবকিছুই এখন স্বাভাবিক হচ্ছে। বিশ্বের সব ইন্ডাস্ট্রিতে অনেক নেতিবাচক প্রভাব পড়বে। আমাদের ইন্ডাস্ট্রিতেও পড়বে। সেই সময়টা কাটিয়ে উঠার চেষ্টা করতে হবে সবাইকে।

দীর্ঘদিন বাসায় থেকে নিজেকে তৈরি করেছি আমি কাজ করার জন্য। হাতে যে সিনেমাগুলো আছে সেগুলোর কাজ শিগগিরই শুরু করবো। নতুন কয়েকটি কাজের কথাবার্তা চলছে। সবকিছু ঠিকঠাক হলে সেগুলো নিয়েও মাঠে নামবো।’

এদিকে গায়ক ও অভিনেতা তাহসান খানের সঙ্গে বিদ্যা সিনো মিমকে সম্প্রতি একটি ওয়েব ফিল্মে দেখা গেছে। ‘হঠাৎ বিয়ে’ নামের সেই ফিল্মটি বেশ প্রশংসিত হয়েছে।

Latest news
Related news