Saturday, October 29, 2022

সোনার হরিণ’-এ আরেকটু হলেই বিয়ে হয়ে যেত সমতা-ভাস্বরের! জেনে হাসি চাপতে পারবেন না

বিয়ের সাজে দেখা মিলল ভাস্বর চট্টোপাধ্যায়ের। ভাবছেন, কবে হল বিয়ে? আসলে এই ছবি একটু পুরনো। স্মৃতির পাতা হাতড়ে ছবিটি শেয়ার করে নিয়েছেন তিনি। সাথে এটি রিয়েল লাইফের নয় কিন্তু, রিল লাইফের! একরসময়ের হিট ধারাবাহিক ‘সোনার হরিণ’-এর ছবি এটি। ভাস্বরের এক পাশে কনের সাজে সমতা দাস। আরেক পাশে সাবিত্রী দেবী।

দিনকয়েক আগেই সমতার সাথে দেখা হওয়ার একটা ফোটো সোশ্যাল মিডিয়ায় দিয়েছিলেন তিনি। এবার ভাগ করে নিলেন একসঙ্গে শ্যুট করার কিছু মজার অভিজ্ঞতা। যা শুনে আপনিও হাসি চেপে রাখতে পারবেন না! ২০০৫ সালে সমতার সঙ্গে অভিনেতার রিল লাইফে বিয়ে হয়েছিল। আর সেখানেই হয়েছিল এক দারুণ কাণ্ড! বিয়ের সেটে সে এক এলাহি আয়োজন। ফুচকার স্টল পর্যন্ত ছিল। এমনকী পুরোহিতও আসল!

‘লীনা গঙ্গোপাধ্যায়ের লেখনীর জোরে সোনার হরিণ ভীষন জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিল। ঠিক সেই সময় সিরিয়ালে আমার সঙ্গে সমতার বিয়ে হয়। টালিগঞ্জের এক স্টুডিওতে এলাহি বিয়ের আয়োজন। এমনকী ফুড স্টলে ফুচকা, আইসক্রিমও রাখা হয়েছে। পুরোহিত মশাইও আসল। বিয়ের দৃশ্যে অনেক শিল্পীর মধ্যে ছিলেন গীতা দে আর সাবিত্রী আন্টি (চট্টোপাধ্যায়)।’, জানান ভাস্বর। আর সেখানেই পুরোহিত আসল মন্ত্র পরতে থাকেন। শুধু তাই নয় শটের ফাঁকে ফাঁকে যখন ভাস্বর উঠে খাবার খাচ্ছিলেন তা দেখে খচে লাল হন পুরোহিতমশাই! ভাস্বরের কথায়, ‘আমি আর সমতা সেই সময় রোল খাচ্ছিলাম,তা দেখে পুরোহিত রেগে আগুন। বলেছিলেন-ছি ছি,বিয়ের সময় উপোস না করে এগ রোল খাচ্ছেন আর এদিক বিয়ে দেব বলে আমি উপোস করে বসে আছি। কিছুতেই ওনাকে বোঝাতে পারলাম না এটা নকল বিয়ে।’

এখানেই শেষ নয়, ধারাবাহিকে দেখানো হয়েছিল হানিমুনে গিয়ে মারা যান ভাস্বর। ওই শ্যুট হওয়ার কিছুদিন পর তিনি একদিন ব্যাঙ্কে গিয়েছেন টাকা তুলতে। আর সেখানের গার্ড ভিরমি খায় একপ্রকার অভিনেতাকে দেখে। শুধু তাই নয়, ভাস্বরের সামনেই নিজের মেয়েকে ফোন লাগান। বলেন, ‘ওরে শম্পার বর মারা যায়নি! ATM -এ এসেছে।’

Latest news
Related news