Thursday, November 3, 2022

রং চা পছন্দ? যে উপায়ে বানালে সবচেয়ে বেশি উপকার পাবেন

আমাদের দৈনন্দিন রুটিনে চা একটি অত্যাবশ্যকীয় রুটিন হয়ে দাঁড়িয়েছে। সকালের নাস্তায় হোক বা বিকেলের হালকা খাবারে, চায়ের চাহিদা সবসময়ই। তবে স্বাস্থ্যের জন্য কোন চা বেশি উপকারী?

এমন প্রশ্নে গ্রিন টিএর কথা আসে প্রথমেই। তবে জানেন কি লাল চা বা রং চায়ের উপকারীতাও কিছু কম নয়!স্বাস্থ্য বিষয়ক ওয়েবসাইট হেল্থ লাইন বলছে, দুধ-চিনিযুক্ত চায়ের চেয়ে রং চা পানে আছে অনেক ইতিবাচক দিক।

দুধ অল্প হলে বিশেষ অসুবিধা না হলেও চায়ে দুধের পরিমাণ বেশি হলে অ্যাসিডিটিসহ হতে পারে আরও বিভিন্ন জটিলতা। এর সাথে চিনি মেশালে তা হয়ে পড়ে আরও ক্ষতিকর।

তবে এ সবের থেকে দুধ-চিনি ছাড়া রং চায়ে আছে বেশি উপকার। চলুন এবার জেনে আসি, রং চা কেন এত উপকারী?প্রথমত, রং চা রোগ প্রতিরোধ শক্তি অনেকটা বাড়িয়ে দেয়। চায়ে প্রচুর পরিমাণে ট্যানিন থাকে।

এই ট্যানিনই রোগ প্রতিরোধ শক্তি বাড়াতে সাহায্য করে। রোজ চা খেলে সাধারণ সর্দি-কাশির মতো সমস্যা কিছুটা কমে।বিপাক হার বাড়ে রোজ চা খেলে। ফলে যারা ওজন কমাতে চান, তারা দুধ-চিনি ছাড়া রং চা খেলে উপকার পাবেন। এই চা মেদ কমাতে সাহায্য করে।

শরীর থেকে দূষিত পদার্থ বার করতে চা সাহায্য করে। যারা ধূমপান করেন, তেলে ভাজাভুজি বেশি খান, তারা নিয়মিত চা খেলে শরীর ভাল থাকে। ধূমপান বা অতিরিক্ত তেলের ভাজাভুজির প্রভাব শরীরের কম পড়ে।

তবে চা বানানোর সময় চা পাতা ৫ মিনিটের বেশি সময় ভিজিয়ে রাখবেন না। তা হলে এই পাতা থেকে বেশি মাত্রায় ট্যানিন বেরোতে থাকে। ওই পরিমাণ ট্যানিন শরীরের জন্য ভাল নয়।

আনন্দবাজার পত্রিকার আরেকটি প্রতিবেদন বলছে, রং চায়ের সর্বোচ্চ উপকারটুকু পেতে চাইলে চা পাতা দেয়ার আগে পানি ভালোভাবে ফুটিয়ে নিন। তার পরে আঁচ বন্ধ করেই তার মধ্যে চা পাতা দিন।

পানিতে চা পাতা দেয়ার পরে, সেই পানি আর ফোটাবেন না। তাতেও অতিরিক্ত ট্যানিন বেরোয় চা পাতা থেকে। সে ক্ষেত্রেও বেশি ক্ষণ পাতা ভিজিয়ে রাখার মতোই সমস্যা হবে।

Latest news
Related news