Saturday, October 22, 2022

শরীরে বইতে হচ্ছে প্রাক্তন স্বামীর ট্যাটু, বিরক্ত হয়ে যা বললেন সামান্থা

বিয়ের পরও বিড়ম্বনার শিকার দক্ষিণী অভিনেত্রী সামান্থা প্রভু। ভালোবেসে বিয়ে করেছিলেন আরেক অভিনেতা নাগা চৈতন্যকে। স্বামীর ভালোবাসায় ট্যাটু করিয়েছিলেন নিজ শরীরে। সেই ট্যাটুই যেনো এখন তার মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

খবরে বলা হয়, ইনস্টাগ্রামে অনুরাগীদের সঙ্গে প্রশ্নোত্তর পর্বে মজেছিলেন অভিনেত্রী। সামান্থা কোন ধরনের ট্যাটু করাতে আগ্রহী, তা জানতে চেয়ে প্রশ্ন করেন এক ব্যক্তি। উত্তরে সামান্থা যা বলেন, তাকে ঘিরেই শুরু যাবতীয় বিতর্ক।

নিজের বক্তব্য জানাতে সংক্ষিপ্ত একটি ভিডিও দিয়েছেন সামান্থা। বলেন, আজ যদি সেই কমবয়সী আমি’র সঙ্গে কথা বলার সুযোগ পেতাম, তা হলে ট্যাটু না করানোর উপদেশ দিতাম। বলতাম কখনও যাতে ট্যাটু না করায়।

অনুরাগীদের একাংশের মতে, প্রাক্তন স্বামী নাগা চৈতন্যকে উদ্দেশ্য করেই সামান্থার এই মন্তব্য। দু’টি ট্যাটু আছে তার শরীরে। সেগুলির মধ্যে একটি সামান্থার প্রথম ছবির নামের আদ্যক্ষর। ঘটনাচক্রে সেই ছবিতে তার বিপরীতে অভিনয় করেন নাগা।

এরপর চৈতন্যের প্রতি ভালোবাসার চিহ্ন হিসেবে তার ডাক নাম (চে) লিখিয়েছেন পাঁজরের বাঁ পাশে। তার কোমরের বাঁ দিকে উজ্জ্বল দুটি ঊর্ধ্বমুখী তিরের ট্যাটু। সেই একই ধরনের ট্যাটু দৃশ্যমান চৈতন্যের শরীরেও।

একে একে অতীতের সব স্মৃতিই যেন মুছে ফেলছেন সামান্থা। গত জানুয়ারি মাসে ইনস্টাগ্রাম থেকে সরিয়ে দিয়েছিলেন বিবাহবিচ্ছেদের বিবৃতি। তখন ভাঙা সম্পর্ক জোড়া লাগার আভাস পেয়েছিলেন অনেকেই। পরে জানা যায়, পোস্টটিকে অপ্রয়োজনীয় মনে করে উড়িয়ে দেন তিনি।

গত বছরের অক্টোবর মাসের শুরুর দিকে বিবাহবিচ্ছেদের ঘোষণা করেছিলেন দক্ষিণী ছবির তারকা-দম্পতি। ঠিক কী কারণে আলাদা হওয়ার সিদ্ধান্ত, তা যদিও খোলসা করে বলা হয়নি। তবে শোনা যায়,

তাদের দাম্পত্যের পথে অন্তরায় হয়ে দাঁড়ায় সামান্থার পেশা। নাগা বা তার অভিভাবক চাননি বাড়ির বৌ কোনো সাহসী দৃশ্যে অভিনয় করুন। শ্বশুরবাড়ি এমন সিদ্ধান্ত মেনে নিতে পারেননি অভিনেত্রী। এরপরেই নাকি দাম্পত্যে ভাঙন ধরে তাদের।তথ্যসূত্র: এই সময়

Latest news
Related news