Saturday, October 22, 2022

নিয়মিত ব্যায়ামে দূরে থাকবে হার্টের রো’গ

বর্তমানে যেসব রোগ নিয়ে সবচেয়ে বেশি ভোগান্তি হচ্ছে, তার মধ্যে প্রথম সারিতেই রয়েছে উচ্চ রক্তচাপ, কোলেস্টেরল, ওবেসিটি এবং হার্টের সমস্যা। অনিয়মিত জীবনযাপন, অত্যধিক স্ট্রেস— সবকিছু মিলিয়েই বাড়ছে হার্টের সমস্যা।

একবার হার্টের সমস্যা ধরা পড়লে, নিয়মের বেড়াজালে বন্দি হয়ে যায় জীবন। বিশেষজ্ঞরা বলেন, প্রথম থেকেই খাওয়া-দাওয়া নিয়ন্ত্রণের পাশাপাশি নিয়মিত ব্যায়াম করলে, দূরে রাখা যায় এই রোগ।

হাঁটা
হাঁটা অত্যন্ত উপযোগী একটি অভ্যাস। তবে ধীরে-সুস্থে হাঁটা নয়। দ্রুতগতিতে হাঁটা। হার্টের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে প্রতিদিন হাঁটার অভ্যাস অত্যন্ত কার্যকর। পালস বিট বৃদ্ধি করে, গাঁটের স্বাস্থ্যও ভালো রাখে।

ওয়েট ট্রেনিং
ওয়েট ট্রেনিং একটি বিশেষ ধরনের শরীরচর্চার পদ্ধতি। পেশি বৃদ্ধি করতে এই শরীরচর্চা করা হয়। দ্রুত ফ্যাট কমায় ওয়েট ট্রেনিং। হার্টের স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত উপকারী। তবে প্রশিক্ষকের তত্ত্বাবধানে এবং পরামর্শমতো করা প্রয়োজন।

সাঁতার
পুরো শরীরের জন্য উপকারী সাঁতার। গাঁটের ব্যথা থেকে শ্বাসযন্ত্রের সমস্যা। কিংবা ঠান্ডা লাগার ধাত, সবকিছুর জন্যই উপকারী সাঁতার। তার সঙ্গেই হৃদযন্ত্রের জন্যও খুবই উপকারী সাঁতারের অভ্যাস।

যোগব্যায়াম
দীর্ঘদিন সুস্থ থাকার জন্য ভরসা হতে পারে যোগব্যায়াম। বিশেষ করে হার্টের সমস্যা দূর করতে যোগাভ্যাস ভীষণ কার্যকরী। পেশির শক্তিবৃদ্ধি থেকে স্বাভাবিক রক্তচাপ, সবকিছুর পিছনেই যোগব্যায়ামের অবদান রয়েছে।

সাইকেল চালানো
এটিও অত্যন্ত উপকারী শরীরচর্চার পদ্ধতি। সাইকেল চালানোর মাধ্যমেই শরীর সুস্থ রাখা যায়। হার্টের কার্যকারিতা বজায় রাখতে সাহায্য করে। স্বল্প দূরত্বের পথ পেরোতে সাইকেল ব্যবহার করা যায়, তাতে কাজের সঙ্গে শরীরচর্চাও হয়।

অ্যারোবিক ব্যায়াম
বর্তমান সময়ে একাধিক আধুনিক শরীরচর্চার পদ্ধতি ব্যবহার হয়। তার মধ্যে অন্যতম অ্যারোবিকস। নির্দিষ্ট ছন্দে তাল মিলিয়ে একের পর এক স্ট্রেচিং ও বিভিন্ন ধরনের ফ্রি হ্যান্ড করা হয় এর মাধ্যমে। ফিটনেস বৃদ্ধি করতে এবং Cardiovascular condition বাড়াতে এর জুড়ি নেই।সূত্র : এবিপি আনন্দ।

Latest news
Related news