Thursday, October 20, 2022

বাংলায় পুষ্পা রাজ! ‘আপুন লিখেগা নেহি শালা’, মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীর খাতা দেখে হতভম্ব শিক্ষক

মাধ্যমিক  এর উত্তরপত্রের পাতায় এবার রুপোলি পর্দার স্পর্শ। টানা দু’বছর ধরে মধ্যশিক্ষা পর্ষদের সবথেকে বড় পরীক্ষা মাধ্যমিক পরীক্ষা অনলাইনে হয়েছে। এই দুই বছর পর প্রথমবার অফলাইন পরীক্ষা দিল মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীরা। সম্প্রতি শুরু হয়ে গেছে মাধ্যমিক পরীক্ষার খাতা দেখা। আর এই খাতা দেখাকে কেন্দ্র করে উঠে এল অত্যন্ত এক মজার ঘটনা।

কিছুদিন আগেই দক্ষিণী ছবি ‘পুষ্পা’  সারাদেশে ব্লকবাস্টার হয়েছিল। মুক্তির পরই প্রায় ৩০০ কোটি টাকার ব্যবসা করে ফেলেছিল এই ছবিটি। এই ছবির সাথে সাথেই এই ছবির প্রত্যেকটি গান ও জনপ্রিয়তা পেয়েছে। এমন কি হিরো আল্লু আর্জুন এর জনপ্রিয় ডায়লগ আট থেকে আশি সকলের মুখে মুখে।

থুতনিতে হাত বোলাতে বোলাতে আল্লু আর্জুনের স্টাইলে “পুষ্পা,পুষ্পা রাজ” এই ডায়লগ আজ সকলের মুখে মুখে ফিরছে। কিন্তু এই ডায়লগ যে মাধ্যমিক পরীক্ষার উত্তরপত্রে উঠে আসবে তা রীতিমতো অকল্পনীয়।

সম্প্রতি মাধ্যমিক পরীক্ষার খাতা মূল্যায়ন করতে গিয়ে এরকমই এক অদ্ভুত অভিজ্ঞতার শিকার হয়েছেন শিক্ষকেরা। এক পরীক্ষার্থী পরীক্ষা দেবার সময় শুধুমাত্র সাদা খাতা জমা দেয়। নাম ছাড়া সে কিছুই আর লিখবে না। একথা সে খাতায় লেখে। এটাই নাকি তার স্টাইল।

তবে সংবাদমাধ্যমের তরফ থেকে এই খবরের এখনো সত্যতা যাচাই করা হয়নি। খাতায় সে অন্য কোন প্রশ্নের উত্তর না লিখে শুধু মাত্র পুষ্পা সিনেমার নাম লিখে চলে এসেছে। একদিকে এই খবর যেমন সোশ্যাল মিডিয়ায় হাসি মজার উদ্রেক ঘটিয়েছে। অন্যদিকে এই ঘটনা চোখে আঙ্গুল দিয়ে তরুণ প্রজন্মের হতাশাকে দেখাচ্ছে।

মধ্যশিক্ষা পর্ষদের তরফ থেকে সমস্ত শিক্ষকদের ২৮ শে এপ্রিলের মধ্যে খাতা জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। সেই জন্যই সব জায়গায় জোরকদমে চলছে মাধ্যমিক এর উত্তরপত্র মূল্যায়নের পর্ব। টানা দু’বছর পর কিভাবে পরীক্ষা নেওয়া হবে সেই সমস্ত গাইডলাইন ইতিমধ্যে মধ্যশিক্ষা পরিষদের তরফ থেকে জানানো হয়েছিল।

কিন্তু টানা দু’বছর অনলাইনে পরীক্ষার পর এইবার অফলাইনে পরীক্ষার খাতা দেখতে গিয়ে রীতিমতো বিভিন্ন রকমের অদ্ভুত অভিজ্ঞতার শিকার হচ্ছেন শিক্ষকেরা। অতিমারির প্রবাহে পড়াশোনা সংস্পর্শ থেকে অনেকটাই দূরে চলে গেছে পরীক্ষার্থীরা।

অনলাইনে সেভাবে পড়াশোনার সুযোগ পায়নি অনেকে। সামনাসামনি ক্লাসের যে চেনা ছবি তার থেকে অনেকটাই দূরে ছিল পড়ুয়ারা। আর তার ফলেই তাদের পড়াশোনার অত গাফিলতি মনে করা হচ্ছে। এদিন খাতা দেখতে গিয়ে দেখা যায় অনেক পড়ুয়ারা উত্তরপত্রে একটা শব্দ ও লিখতে পারেনি। আবার অনেক পরীক্ষার্থী প্রশ্নপত্র টাই উত্তরপত্রে টুকে দিয়ে চলে এসেছে।

মনে করা হচ্ছে পরীক্ষা পড়াশোনার পরিবেশ থেকে অনেকটাই দূরে চলে গেছে পড়ুয়ারা। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য আশা করা হচ্ছে মে মাসের মধ্যেই প্রকাশিত হবে এই বছরের মাধ্যমিক পরীক্ষার ফলাফল।

Latest news
Related news