Saturday, October 22, 2022

একসাথে আট মহিলাকে বিয়ে, যুবকের কীর্তিতে হতবাক গোটা বিশ্ব!

ব্রাজিলিয়ান মডেল হিসাবে আর্থার আরসো যথেষ্ট জনপ্রিয়। মডেলিং জগতে তিনি ইতিমধ্যে আলোড়ন ফেলে দিয়েছেন। কিন্তু ব্রাজিলিয়ান মডেল হিসেবে তিনি যতটা না জনপ্রিয়তা পেয়েছেন তার থেকে বেশি জনপ্রিয়তা পেয়েছেন তাঁর বহুগামিতা চরিত্রের জন্য।

ছবি সংগৃহীত

একসঙ্গে একাধিক নারীর সাথে সহবাস এবং সংসার পাতার জন্য ব্রাজিলে তিনি খুবই পরিচিত। ইতিমধ্যে নয় জন নারীর সাথে সংসার করছেন তিনি এবং খুব শীঘ্রই আরো একজনকে বিবাহ করে দশ জন নারীর সাথে সংসার জীবনে আবদ্ধ হতে চান তিনি।

কিন্তু এরই মধ্যে এক সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে। যার জন্য এই ব্রাজিলিয়ান মডেল মানসিক সমস্যায় ভুগছেন।

বেশ কিছুদিন ধরে এত জন নারীর সাথে বেশ সুখে শান্তিতে সংসার করছিলেন তিনি। কিন্তু হঠাৎ করেই তাঁর আগাথা নামক এক স্ত্রী স্বামীর এই বহুগামিতা স্বভাবে অতন্ত বিরক্ত হয়েছেন এবং বিবাহবিচ্ছেদের দাবি তুলেছেন। কার্যত এই মহিলা

এখন একগামী জীবনে ফিরতে চাইছেন। কিন্তু স্ত্রীর এরকম দাবিতে কার্যত হতবাক আর্থার। সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ব্রাজিলিয়ান এই মডেল জানিয়েছেন ‘এই সমস্ত বিষয়টি তিনি অত্যন্ত হতবাক হয়েছেন। বর্তমানে তিনি মানসিক অবসাদ এর শিকার’।

ছবি সংগৃহীত

এর সাথে আর্থার আরো জানান ‘আমার অন্যান্য স্ত্রীরাও খুবই অবাক। তারা তো বলছে আগাথা মোটেই ভালোবেসে বিয়ে করেনি। নতুন কিছু কে দেখার এবং নতুন জীবন যাপনের আশায় এই বিয়ে করেছিলেন। আগাথা মোটেই এটা ভালো করছে না’।

তবে আর্থার যতই মানুষের যন্ত্রণায় ভুগুক না কেন আগাথা এখন নিজের লক্ষ্যে স্থির। বিবাহবিচ্ছেদ তিনি করেই ছাড়বেন। তবে স্ত্রীর এই সিদ্ধান্তে অন্য রকম এক সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছেন আর্থার। খুব শীঘ্রই আবার এই জায়গা পূরণ করতে অন্য একজন নারীকে বিবাহ করবেন তিনি।

কিছুতেই তিনি তাঁর স্ত্রীর জায়গা কমতে দিতে চান না। তাড়াতাড়ি স্ত্রী সংখ্যা ১০ এ নিয়ে যাবেন তিনি। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য আর্থারের প্রথম স্ত্রীর নাম লুয়ানা কাজাকি। গতবছর তিনি আট জন নারীকে একসঙ্গে বিবাহ করেন।

তাঁর এই বহুবিবাহে ব্রাজিলে যথেষ্ট চর্চিত হয়েছেন তিনি। যদিও নিয়ম অনুসারে ব্রাজিলে বহুবিবাহ নিষেধ। কিন্তু সে সমস্ত আইনকে বুড়ো আঙুল দিয়ে আর্থার নিজের এই বহুগামিতাকে উপভোগ করছেন চুটিয়ে।

 

Latest news
Related news