প্রেমে পড়লে শারীরিক যেসব পরিবর্তনগুলো ঘটে

Share

প্রেম সবার জীবনেই আসে। এমন মানুষ খুব কমই পাওয়া যাবে যার জীবনে ভালোবাসা আসেনি। মজার ব্যাপার হলো প্রেমে পড়লে শারীরিক ও মানসিক কিছু পরিবর্তন ঘটে। যা নিজের অজান্তেই হয়ে থাকে। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক পরিবর্তনগুলো সম্পর্কে–

শরীরের নানান ব্যথা কমে: ভালোবাসা মস্তিষ্কের নিউরাল রিসেপটরের কার্যকারিতা বাড়িয়ে ব্যথার অনুভূতি কমিয়ে দেয়। প্রেমে পড়লে মানুষের শরীরের নানান ধরনের ব্যথা সেরে যায়। তাই ভালোবাসাকে বিজ্ঞানীরা ব্যথার ওষুধ বলে আখ্যায়িত করেছেন।

ভুলোমন: প্রেমে পড়লে মস্তিষ্কে প্রচুর পরিমাণে অক্সিটসিন হরমোন উৎপন্ন হয়, যা স্মৃতিশক্তি কিছুটা কমিয়ে দিতে পারে। আর তাই মানুষ প্রেমে পড়লে কিছুটা অন্যমনষ্ক এবং ভুলোমনা হয়ে যায়।

খাবারের স্বাদ বেড়ে যায়: প্রেমে পড়লে খাবারের স্বাদ বেশি লাগে। যারা নতুন প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়েছে তাদের কাছে সব খাবারের স্বাদই অন্যদের তুলনায় একটু বেশিই লাগছে।

মস্তিষ্কের কার্যকলাপ পরিবর্তিত হয়ে যায়: প্রেমে পড়ার বিষয়টি মস্তিষ্কের ১২ টি স্থানে গিয়ে আঘাত করে। ফলে প্রেমে পড়ার সঙ্গে সঙ্গে মস্তিষ্কের কার্যকলাপ পরিবর্তিত হয়ে যাবে। মস্তিষ্ক সব সময়ে যেভাবে চিন্তা করেছে, সেভাবে চিন্তা করতে পারবে না। অনেক বিষয়ই আবেগ দিয়ে নিয়ন্ত্রিত হবে তখন।

হৃৎপিণ্ডের গতি পরিবর্তিত হয়ে যায়: প্রেমে পড়লে শরীরে হরমোনের পরিবর্তন ঘটে। আর হরমোনের এই পরিবর্তনের ফলে রক্তচাপ কমে যায়। সেই সঙ্গে কমে যায় হৃৎপিন্ডের গতিও। বিশেষ করে ভালোবাসার মানুষটির আশেপাশে থাকলে এই পরিবর্তনটা বেশি ঘটে থাকে।

ঘুম কম হয়: প্রেমে পড়লে কমপক্ষে রাতের ঘুম একঘণ্টা কমে যায়। আর তার কারণ হলো, রাতে ঘুমাতে গেলেই প্রিয় মানুষটির কথা সবচাইতে বেশি মনে পড়তে থাকে এবং শারীরিক ও মানসিক অস্থিরতা বেড়ে যায়। ফলে ঘুমানোর জন্য প্রস্তুত হতে পারে না শরীর এবং ঘুমাতে দেরি হয়ে যায়।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *