জানেন কি, সহ’বাসের পর কী কী করা একেবারেই ঠিক নয়?

Share

যৌনতা দৈনন্দিনের অত্যন্ত স্বাভাবিক ও সাধারণ একটি ঘটনা। কিন্তু তা নিয়ে ফিসফাস করেই অনেক সময় তাকে অস্বাভাবিক করে তোলার প্রবণতা দেখা যায়।

বিভিন্ন ভুল ধারণাও তৈরি হয়। সহবাসের পর কী কী করা একেবারেই ঠিক নয়, তারই একটা গাইডলাইন দেওয়ার চেষ্টা করলাম আমরা। দেখুন আপনার কাজে লাগতেও পারে।

১) সহবাস (sex) বা যৌনতার পর পরিচ্ছন্ন থাকাটা খুব জরুরি। বিশেষত যোনি পরিষ্কার রাখুন। এই কাজটি করতে গিয়ে অনেকেই টিস্যু ব্যবহার করেন। টিস্যু ভিজিয়ে যোনি পরিষ্কার করেন। কিন্তু এটা একেবারেই ভুল।

কারণ টিস্যুর মধ্যে থাকা রাসায়নিক যোনির নরম ত্বকের জন্য স্পর্শকাতর হতে পারে। চুলকানির মতো সমস্যাও হওয়া আশ্চর্যের নয়। সাধারণ তাপমাত্রার জল (water) ব্যবহার করে যোনি পরিচ্ছন্ন রাখুন।

২) একই রকম ভাবে সহবাসের পর যোনি পরিষ্কারের সময় সাবান বা কোনও রকম গন্ধযুক্ত দ্রব্য ব্যবহার না করাই ভাল। কারণ সাবান ব্যবহারের ফলে যোনির নরম অংশ আরও শুষ্ক হয়ে যেতে পারে।

৩) সহবাসের পরে স্নান করে নিলে অনেকেরই ফ্রেশ লাগে। তবে ভুলেও অত্যন্ত গরম বা ঠাণ্ডা জল ব্যবহার করবেন না। হালকা গরম জলে স্নান করুন। জলের তাপমাত্রা এক্সট্রিম হলেও সংক্রমণের সম্ভাবনা থেকে যায়।

৪) সহবাসের সময় যদি কোনও রকম সেক্স টয় ব্যবহার করে থাকেন, অবশ্যই সহবাসের পরেই তা ভাল করে পরিষ্কার করে ফেলুন। পরিষ্কার না করে ফেলে রাখবেন না। কারণ এর থেকেও পরে সংক্রমণ হতে পারে। সঠিক ভাবে পরিষ্কার না করে পরের বার ফের ব্যবহার করা একেবারেই উচিত নয়।

৫) সহবাসের পর কোনও ভাবেই ফিটিংস জামা-কাপড় পরবেন না। কোনও রকম ফিটিংস অন্তর্বাসও এড়িয়ে চলুন। যতটা সম্ভব পাতলা কাপড়ের পোশাক ব্যবহার করুন।

৬) সহবাসের ঠিক পরেই ফোন বা টিভি ব্যবহার করবেন না। বরং সেই সময়টা আপনার পার্টনারকে দিন। যান্ত্রিক ভাবে সহবাস করলে কিন্তু কোনও লাভ নেই। যৌনতার পরে নিজেদের মধ্যে কথা বলুন, বা ঘনিষ্ঠ আলিঙ্গনে ঘুমিয়ে পড়ুন। এতে সম্পর্ক আরও মজবুত হবে।

৭) সহবাসের ঠিক পরেই প্রস্রাব করে নেওয়াট আবশ্যক। কোনও অবস্থাতেই প্রস্রাব করতে ভুলবেন না। এই বিষয়ে আলিস্যিকেও পাত্তা দেবেন না। এতে শরীর থেকে যাবতীয় জীবাণু বেরিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়।

৮) যৌনতা নিয়ে আপনার কোনও সমস্যা থাকলে তা নিয়ে আগেই পার্টনারের সঙ্গে কথা বলে নিন। সহবাসের পর এ সব নিয়ে আলোচনা করে কোনও লাভ নেই।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *