জানা গেল পরীমণির বিছানায় সেই রক্তের কারণ

Share

নায়িকা পরীমণি ও অভিনেতা শরিফুল রাজ এক বছরের সংসার জীবনের ইতি টেনে আলাদা হয়ে গেছেন।

দুজনের মধ্যে বিভিন্ন বিষয়ে বনিবনা না হওয়াতেই এত দ্রুত অবনতি ঘটে সম্পর্কের। সপ্তাহ ধরে দুই তারকার সামজিক মাধ্যমেও ফুটে উঠে বিচ্ছেদের চিত্র। এখন বাকি শুধু আনুষ্ঠানিকতা।

এরমধ্যে পরীর একটি পোস্ট বেশ আলোচনায় আসে। নতুন বছরের প্রথম প্রহরে ফেসবুকে দুটি ছবি প্রকাশ করেন পরী। যেখানে তার বিছানা ও কোল বালিশে রক্তের দাগ রয়েছে। ধারণা করা হয়, রাজের সঙ্গে তার হাতাহাতি থেকেই ঘটনাটি ঘটেছে।

ঘটনার বিস্তারিত না জানিয়ে পরীমণি ছবি দুটির ক্যাপশনে লেখেন, ‘হ্যাপি নিউ ইয়ার। প্রেস কনফারেন্স টুমরো…লোডিং’। যদিও পরী এখনও সেই প্রেস কনফারেন্স করেননি। তার আগেই জানা গেলো সেই রক্ত ঝরার কারণ।

রাজ-পরীর বাসার ব্যবস্থাপক সংবাদকর্মীদের বলছেন, ‘পরীমণি যে রক্তের কথা বলছেন, সেটা আদতে অ্যাকুরিয়াম ভেঙে দুর্ঘটনা ঘটেছে।’

মধ্যবয়সী সেই ব্যবস্থাপকের কথায়, ‘অনেকে ভেবেছেন, পরীমণি রাজকে মেরে রক্তাক্ত করেছেন-বিষয়টি তা নয়। অ্যাকুয়ারিয়াম রাখতে গিয়ে রক্তারক্তি হয়েছে। রাজ নিজেই অ্যাকুয়ারিয়াম সরাচ্ছিলেন। সেটি পড়ে ভেঙে রাজের হাত কেটে গেছে। ওই সময় রাজ্যও পাশে ছিল।’

তিনি আরও বলেন, ‘স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে প্রায়ই যেমন ঝগড়া হয়, এটি তেমনই। অনেক মিলও দেখি তাদের মধ্যে। হঠাৎ করে কী যে হলো, বুঝতে পারলাম না!’

উল্লেখ্য, ২০২১ সালের ১৭ অক্টোবর গোপনে বিয়ে করেন ঢাকাই সিনেমার আলোচিত নায়িকা পরীমণি ও অভিনেতা শরিফুল রাজ। মাত্র সাতদিনের পরিচয়ে তারা বিয়ে করেছিলেন। ২০২২ সালের ১০ জানুয়ারি সেই খবর প্রকাশ্যে আনেন তারা। একইদিন সন্তানধারণের বার্তাটিও দেন এ দম্পতি। এরপর সে বছরের ২২ জানুয়ারি পারিবারিক আয়োজনে বিয়ে সারেন। গত ১০ আগস্ট তাদের ঘর আলো করে এসেছে পুত্রসন্তান-শাহীম মুহাম্মদ রাজ্য।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *